Home স্বাস্থ্য, শরীরচর্চা ও সুরক্ষা আতঙ্ক! ধমনীতে দ্রুত জমাট বাঁধছে রক্ত, পৌঁছচ্ছে ফুসফুসে! করোনা রোগীরা আক্রান্ত হচ্ছেন ‘ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস’-এ! গবেষণা…

আতঙ্ক! ধমনীতে দ্রুত জমাট বাঁধছে রক্ত, পৌঁছচ্ছে ফুসফুসে! করোনা রোগীরা আক্রান্ত হচ্ছেন ‘ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস’-এ! গবেষণা…

নিজেস্ব সংবাদদাতা

দেশজুড়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। একই সঙ্গে চলছে এই মারণ ভাইরাস নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা। সম্প্রতি গবেষণায় ধরা পড়েছে, হাসপাতালে ভর্তি হওয়া কোভিড রোগীদের ক্ষেত্রে বাড়ছে ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস অথবা ভেনাস থ্রম্বো এম্বলিজম (ভিটিই)-এর সম্ভাবনা।  

Web content writing training Online

দেহের ভেতরের ধমনীতে রক্ত জমাট বেঁধে গেলে সেই গুরুত্বর অবস্থাকে বলে ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস। এই জমাট বাঁধা রক্ত ঢুকে পড়ে ফুসফুসে। তবে সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে হাসপাতালের জেনারেল ওয়ার্ডে থাকা রোগীদের ভিটিই-র ঝুঁকি ৫ থেকে ১১ শতাংশ। অথচ গুরুতর অসুস্থ থাকা হাসপাতালের বাকি কোভিড রোগীদের ক্ষেত্রে সেই ঝুঁকি ১৮ থেকে ২৮ শতাংশ। গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে রিসার্চ অ্যান্ড প্র্যাক্টিসেস ইন থ্রম্বোসিস অ্যান্ড হিমোস্ট্যাসিস জার্নালে। 

ভিয়েনা মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সিহান আই এই প্রসঙ্গে বলেছেন যে এ হেন গবেষণার ফলে এখন কোন ধরনের কোভিড রোগীকে কোথায় রাখা হবে, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ হবে। 

খবর অনুযায়ী, মোট ৫ হাজার ৯৫১ জন কোভিড রোগীকে পরীক্ষা করে গবেষণা চালানো হয়েছে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া করোনা রোগীদের ক্ষেত্রে ভিটিই-তে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ১৪ শতাংশ। ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে থাকা রোগীদের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা ২৩ শতাংশ। 

তবে শুধু ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিসই নয়, করোনা ভাইরাসের আক্রমণে নানা আনুষঙ্গিক সমস্যা দেখা দিচ্ছে মানুষের শরীরে। এই নিয়ে বিগত কয়েক মাস ধরেই গবেষণা চলছে। সাম্প্রতিক পর্যবেক্ষণ বলছে, কোভিড ১৯-এর সংক্রমণ হার্টের অপূরণীয় ক্ষতি করে দিচ্ছে। এমনকি যাঁদের ক্ষেত্রে মৃদু সংক্রমণ হচ্ছে, তাঁদের হার্টেও স্থায়ী ক্ষতি হচ্ছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষণা বলছে রোগী করোনা আক্রমণ কাটিয়ে সুস্থ হয়ে যাওয়ার মাসখানেক পরেও হৃদযন্ত্রে প্রদাহ এবং ক্ষত থেকে যাচ্ছে। দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোভিডজয়ী রোগীদের রোগমুক্ত হওয়ার পরেও শ্বাসকষ্ট, বুকে ব্যথা, বুক ধড়ফড় হওয়া- এই সব হয়েই চলেছে। কারণ বিশ্লেষণে ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর কার্ডিওভাস্কুলার বায়োলজির গবেষক চার্লস মুরি বলছেন, হার্টের পেশি-কোষ নতুন করে তৈরি হয় না, জন্মের সময় থেকে একই থাকে। তাই কোনও ভাবে এই কোষের ক্ষয়ক্ষতি হলে তা সারার সম্ভাবনা প্রায় থাকে না বললেই চলে, হার্টের যান্ত্রিক ক্ষমতা কমে যায়।

100% Free Domain Hosting - Dreamhost banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

খুব বেশি কফি খান? খুব সাবধান, দেখা দিতে পারে এই সমস্যাগুলি

এক-আধ কাপ খেলে কোনও সমস্যা নেই, কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত কফি পান করলে কী কী হতে পারে সেটা একবা…