কানাডার ওয়াটারলু বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা সম্প্রতি এমন একটি রাডার তৈরি করেছেন যেটা দূর থেকে রোগীর নানা উপসর্গ শনাক্ত ও পর্যবেক্ষণ করতে পারবে।

Web content writing training Online

গবেষণাসংক্রান্ত এই নিবন্ধ ‘আই ট্রিপলই অ্যাকসেস’ সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে।

এ ধরনের রাডার ব্যবহার করা গেলে বিভিন্ন ধরনের যন্ত্রের ওপর নির্ভরশীলতা কমে যাবে।

এছাড়া এই রাডারের মাধ্যমে তরঙ্গ ডিজিটাল সিগন্যাল প্রসেসিং ইউনিটে থাকা বিশেষ অ্যালগরিদমের মাধ্যমে বিশ্লেষণ করা যায়।

পরীক্ষাগারে বিভিন্ন তার ও সেন্সর বসিয়ে পরীক্ষার বদলে হৃদ্‌যন্ত্রের সূক্ষ্ম আন্দোলন ধরতে এ যন্ত্র কাজে লাগবে।

ওয়াটারলু বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক জর্জ শাকের বলেন, ক্লিনিকে গিয়ে পরীক্ষার বদলে ঘরে বসেই এটি ব্যবহার করা যাবে। পুরো জটিল প্রক্রিয়াকে পুরো তারহীন করা হয়েছে।

গবেষকেরা ৫০ জন স্বেচ্ছাসেবীর ওপর যন্ত্রটি নিয়ে পরীক্ষা চালান। তারা দাবি করেন, এতে ৯০ শতাংশ নিখুঁত ফল পেয়েছেন তারা।

গবেষকেরা বলেন, প্রথমবারের রাডার তরঙ্গ ব্যবহার করে হৃদ্‌যন্ত্র পর্যবেক্ষণে নিখুঁত ফল পাওয়া গেছে। এই পদ্ধতির মাধ্যমে অঙ্গপ্রত্যঙ্গের নড়াচড়া শনাক্তকরণ ছাড়াও খিঁচুনির মতো বিষয়গুলোতেও প্রয়োগ করা যাবে।

তবে এই যন্ত্রের ব্যবহার কবে থেকে শুরু হবে তা জানা যায়নি।

100% Free Domain Hosting - Dreamhost banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

পুজো হবে, নাকি হবে না ! দোটানায় কলকাতার আবাসনের দুর্গা পুজো !

 হবে, নাকি হবে না? কলকাতার আবাসনে এটাই পুজোর ভাবনা। আবাসনের অনেক আবাসিক দোটানায়! কেউ কেউ …