Home Treatment আর্গোনোমিক্স কি ? কিভাবে এর প্রতিকার সম্ভব?

আর্গোনোমিক্স কি ? কিভাবে এর প্রতিকার সম্ভব?

মানব জীবনে আর্গোনোমিক্স এর ক্ষতিকর প্রভাব ও প্রতিকার !

Related image
Google

মানব জীবনের সাথে হাতে হাত মিলিয়ে পরিবর্তন এগিয়ে চলেছে ,কখনো এই পরিবর্তন মানবজীবনে ভালো প্রভাব ফেলেছে,কখনো বা খারাপ |কম্পিউটার তো ছিলই ,কয়েক বছর আগে যখন সবার হাতের মুঠোয় মোবাইল উঁকি মারা শুরু করল, মনে হয়েছিল একটা যুগ পরিবর্তন এসেছে। এরপর অ্যান্ড্রয়েড ফোন, তারপর এলো বিভিন্ন রকমের ট্যাব। এহেন প্রযুক্তি একেক মানুষের জীবনে একেক রকম পরিবর্তন আনলেও একটা পরিবর্তন সবার মাঝেই এসেছে, আর তা হল ঘাড় ব্যথা! কিছুদিন আগে বাজারে আসা আইপ্যাড জনপ্রিয় হবার পর এই ঘাড় ব্যথার পরিমাণ আরও বেড়ে গেছে। এখনও পর্যন্ত যদিও জানা যায়নি ঠিক কত মানুষের এই “রোগ”টি হয়েছে, কিন্তু ডাক্তাররা ইতোমধ্যেই ঘাড় এবং কাঁধের এই ব্যথার নাম দিয়ে ফেলেছেন “আইপ্যাড নেক স্ট্রেইন”। ব্যাপারটা একই সাথে দুঃখজনক এবং হাস্যকর কারণ শক্ত হয়ে বসে ডেস্কটপ ব্যাবহারে যতটা না শারীরিক ক্ষতি হচ্ছিল, শুয়ে বসে ট্যাবলেট ব্যবহারেও সেসব ক্ষতিই হচ্ছে। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির আর্গোনোমিক্স এর প্রফেসর জ্যাক ডেনারলেইন ট্যাবলেটকে বই এর সাথে তুলনা করে বলেন, “বিষয়টিকে এভাবে দেখা যায়, আমরা বই পড়াতে ফিরে গেছি”।

Web content writing training Online
Related image
Google

এ কথা বলার কারণ হলো বইয়ের মতো ট্যাবলেটকেও অনেক ভাবে শুয়ে-বসে ব্যবহার করা যায় এবং ডেস্কটপ ব্যবহারের সীমাবদ্ধতা এর মধ্যে নেই। গত বছর তিনি ট্যাবলেট ব্যবহারের অবস্থানের ওপর একটি গবেষণা করেন। সাধারণত টেবিলের ওপর রেখে, পা উঁচু করে কোলের ওপর রেখে বা কোথাও ঠেকা দিয়ে রেখে মানুষ ট্যাবলেট ব্যবহার করে থাকে। ব্যবহার চলাকালীন সময়ে ব্যবহারকারীদের ওপর গবেষকরা ইনফ্রা-রেড সেন্সর ব্যবহার করে ঘাড় এবং কাঁধের ওপর শারীরিক ক্ষতির সম্ভাবনা এবং মাত্রা পর্যবেক্ষণ করেন। এ গবেষণা থেকে তিনি যে তথ্য পান তাতে জানা যায়, এসব অবস্থানের কোনটিই আদর্শ নয় এবং এক অবস্থানে বেশিক্ষণ থাকা ক্ষতিকর। এছাড়াও কোন অ্যাঙ্গেলে আছে তার ওপরেও নির্ভর করে আমাদের ঘাড়ের পেশীর সুস্থতা।

এই সমস্যা সমাধানে বাজারে আসে আর্গোনোমিক্স চেয়ার উদার, এটি অনন্য, আড়ম্বরপূর্ণ এবং লাইটওয়েট। এটি একটি নতুন ধরনের পরিবেশ বান্ধব স্বাস্থ্য চেয়ার যা ব্যাপকভাবে আধুনিক হোম, বিনোদন, ইন্টারনেট ক্যাফে, হোটেল, অবসর, কনফারেন্স রুম এবং অফিস কম্পিউটার ডেস্কগুলিতে ব্যবহৃত হয়। নকশা নীতি শারীরিক আকৃতি সমন্বয় বিভিন্ন জন্য উপযুক্ত প্রাকৃতিক, মানবতা সমন্বয় প্রকাশ; উপাদান প্রধানত পরিবেশ বান্ধব উপকরণ ব্যবহার করা হয়।
এই সকল সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে মূলত এই কয়েকটি বিষয় মেনে চলতে হবেঃ
১) একই অবস্থানে দীর্ঘ সময় বসে থাকা মানেই অসুস্থতাকে ডেকে আনা। কারণ আমাদের শরীর একই অবস্থানে জবুথবু হয়ে বসে থাকার জন্য তৈরি হয়নি। এমনকি ঘুমের মাঝেও আমরা নড়াচড়া করি কারণ আমাদের পেশী কলাকে নিয়মিত নাড়াচাড়া করানোটা জরুরি।বারবার অবস্থান পরিবর্তন করাটাই আদর্শ। কয়েক মিনিটের বেশি একই অবস্থানে বসে থাকবেন না। একটি অবস্থানে বসে থাকতে থাকতে যখনই আপনার অস্বস্তি লাগা শুরু করবে তখনই আপনার শরীরের কথা শুনুন এবং একটু নড়েচড়ে বসুন।

Image result for ergonomics
Google
Google

২) বিজ্ঞাপনগুলোতে দেখা যায় মডেল পুরুষ বা নারী বেশ আয়েশ করে সোফায় হেলান দিয়ে এবং কফি টেবিলের ওপর পা তুলে দিয়ে ট্যাবলেট ব্যবহার করছেন। এটা মোটেই স্বাস্থ্যকর অভ্যাস নয়। এ অবস্থায় ঘাড় অস্বাভাবিকভাবে বাঁকা হয়ে থাকে এবং এভাবে বেশিক্ষণ থাকা মানেই ঘাড়ের পেশিতে চাপ পড়বে ও ব্যাথা করবে।
৩) কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে এমন অবস্থানে ব্যবহার করতে হয় যাতে চাপ পরে কব্জির ওপর এবং বেশি সময় টাইপ করলে আপনার হাতের ওপরের অংশেও চাপ পড়বে। ল্যাপটপে বেশি লেখালেখি করার দরকার থাকলে এক্সটারনাল কি-বোর্ড কিনে নিন।
৪)আর্গোনোমিক্স চেয়ার ব্যাবহার করুন ,এটি ভাল বায়ুচলাচল এবং তাপ অপচয় বৈশিষ্ট্য, এবং আরামদায়ক এবং স্বাস্থ্যকর, যা ব্যবহার সময় চেয়ারে ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধির পরিবেশ প্রতিরোধ করতে পারে। এটি নিতম্বের কম্প্রেশন এলাকাকে কমাতে পারে, বল পয়েন্টগুলিতে পয়েন্টগুলি চাপতে পারে, নিতম্বে রক্ত সঞ্চালনের প্রচার করতে পারে, ঘাড় এবং কাঁধে চাপ দিতে পারে, এবং আপনার সুস্থ শরীরকে বজায় রাখতে পারে।

 

এই আর্গোনোমিক্স চেয়ার এর কিছু বৈশিষ্ট্য লক্ষ করা যায়-

Image result for ergonomics
Google

১) হেডস্টের উচ্চতা এবং ঘূর্ণন সমন্বয় করা যেতে পারে, যা ব্যবহারকারীকে স্বাভাবিকভাবেই সার্ভিকাল মেরুদণ্ডের হেডস্ট্রেটের সাথে মানিয়ে নিতে, রাইডারের আসনবিন্যাসকে মানানসই করতে এবং অফিস উপভোগ করতে দেয়। হেডস্টের উচ্চতা আপনার সার্ভিকাল মেরুদণ্ডকে সম্পূর্ণরূপে সমর্থন করে যখন সেরা অবস্থান হয়।
২)সক্রিয় কটিদেশীয় সমর্থন বক্রতা সামঞ্জস্য করে যাতে পুরো নিম্ন পিছনে পিছনে পিছনে আরামদায়কভাবে শিথিল হয়, পিছনে মেরুদণ্ডটি শিথিল করার অনুমতি দেয়, ফলে ব্যাক মেরুদণ্ডের ক্লান্তি থেকে মুক্তি পায়।
৩) মাউস হাত উত্পন্ন হতে বাধা দেওয়ার জন্য হাত এবং টেবিলটি মসৃণকরণের মধ্যে সংক্রমণ তৈরির জন্য হ্যান্ড্রিলের উচ্চতা এবং কোণ সামঞ্জস্য করুন।
৪) মাউস হাত উত্পন্ন হতে বাধা দেওয়ার জন্য হাত এবং টেবিলটি মসৃণকরণের মধ্যে সংক্রমণ তৈরির জন্য হ্যান্ড্রিলের উচ্চতা এবং কোণ সামঞ্জস্য করুন।
তাই দেরি করে না করে আজ ই নিজের স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিন | এবং সুস্থ থাকুন ,সুস্থ বাঁচুন |

100% Free Domain Hosting - Dreamhost banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

খুব বেশি কফি খান? খুব সাবধান, দেখা দিতে পারে এই সমস্যাগুলি

এক-আধ কাপ খেলে কোনও সমস্যা নেই, কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত কফি পান করলে কী কী হতে পারে সেটা একবা…