Home ফিল্ম রিভিউ “গেম অফ থ্রোনস” ফাইনাল রিভিউ।

“গেম অফ থ্রোনস” ফাইনাল রিভিউ।

এখন সবার মনেই প্রশ্ন জেগেছিল ব্রান এর থ্রি আয়েড রেভেন নিয়ে।এটা হয়ে কি লাভ হলো? জন স্নো বা এইগন টার্গেরিয়ান এর ক্যারেক্টার এর এমন পরিণতি কেন?ডেনেরিস টার্গেরিয়ান ক্যারেক্টার কে কেন এতো বাজেভাবে নষ্ট করা হলো?
.
আমি যতটুকু দেখে বুঝছি তার আলোকে প্রথমে বলবো গটে আমার সবচাইতে প্রিয় ক্যারেক্টার ডেনেরিস টার্গেরিয়ান কে নিয়ে।সারাবছর যে ছিল মেইন ক্যারেক্টার সে কি লাস্ট ২ এপিসোড এ এমন ফিনিশিং ডিসার্ভ করে?অবশ্যই নাহ!!
পুরা সিজনে বিন্দুমাত্র স্বার্থপরতাহীন থাকা ক্যারেক্টার যে লড়াই করছে দূর্বল দের নিয়ে অর্জন করেছে মিসাহ(মা),ব্রেকার অফ চেইন্স কিংবা খালেসির মতো পদবি শেষে তার নিজ আত্ন তৃপ্তির জন্য আত্নসমর্পণের পর ও এভাবে মানুষ পুরিয়ে মারা নিন্দার উর্ধে ছিল।তবে টার্গেরিয়ান হওয়ায় আর শেষে বৃহৎ সার্থে তার ক্যারেক্টার কে এক কথায় রাইটার রা স্যাক্রিফাইস করেছে বলে আমি মনে করি।যা দুঃখজনক হলেও আমাদের মানতে হবে।

Web content writing training Online

জন স্নো/এইগন টার্গেরিয়ান গটের সবচাইতে অনারেবল ক্যারেক্টার যদি কেও থাকে এটা আমাদের এই প্রিয় স্নো।ফ্রি ফোকদের একতাবদ্ধ করা,ডেথ আর্মিদের বিরুদ্ধে নিজের একক প্রচেষ্টায় সকল মানুষ কে এক করা এই জন স্নো সারাজীবন বাস্টার্ড অফ নেড স্টার্কের পরিচয় পাওয়া ক্যারেক্টার টা যে থ্রোনের সবচাইতে বড় দাবিদার ছিল তা আপনি আমি সবাই ই জানি।তবে হুয়াট স্নো ওয়ান্টস?জন কখনো চায়নি এই থ্রোনে বসতে, শেষ মূহুর্তে তার দুঃখী চেহারা কেবলমাত্র তার ভালোবাসার মানুষ কে তার নীতির বিরুদ্ধে যেয়ে এভাবে মারতে হয়েছে এজন্যই ছিল।তার এই দুঃখ বেদনার মাঝে যদি তখন তাকে থ্রোন অফার ও করা হতো সে তখন এটা আরো ঘৃণা করতো।তো তাহলে জনের জীবনের শেষ সময় সুখের সাথে কাটাতে রিয়াল নর্থ আর ফ্রি ফোক রাই ছিল একমাত্র অপশন আর শেষে তার হাসি তাই বলে দেয়।হয়তো ইয়েগরিটের মতো আর কোন ভালোবাসার মানুষ ও পেয়ে যাবে স্নো কে জানে?আর ডোথরাকি আর আনসালিদ দের কাছে থেকে রক্তপাতহীন এক নতুন সূচনা করতে জনের এই পরিণতি স্বীকার ছিল বাধ্যতামূলক!!
.
কথা বলবো এখন ব্রান দ্যা ব্রোকেন কে নিয়ে।আসল গেইম অফ থ্রোনস কে খেলেছে বলতে পারবেন?হ্যা এই থ্রি আয়েড রেভেন ই ছিল গেইম অফ থ্রোনস এর অরিজিনাল প্লেয়ার।। ব্রান্ডন স্টার্ক সেদিন হোডোরের সাথে মৃত্যুবরণ করছিল তাকে এই লাস্টে থ্রোনে বসা নিয়ে যদি আপনি বকাবাজি করেন সেটা আমি বলবো সম্পূর্ণ আপনার অজ্ঞতা।এখন খালি ওর দেহ টাই আছে যা 3 eyed রেভেন এর মন মতো করে চলে।রিয়াল গেইম টা এই থ্রি আয়েড রেভেন ই খেলছে বৃহৎ ভালোর জন্য। এখন আর থ্রোন নিয়ে হবেনা কোন কাটাকাটি,মারামারি,রাজত্ব একটা বংশের ভেতর ই বজায় থাকবে না এখন থেকে।
গনতন্ত্রের নতুন ধারার পথ দেখিয়ে এভাবেই শেষ হয়ছে পৃথিবীর সবচাইতে জনপ্রিয় এই টিভি শো।নাম টা ছিল গেইম অফ থ্রোনস তবে এই থ্রোনস এর জন্য সকল গেইম রাজনীতি,অবিশ্বাস,জীবন্ত মানুষ কে পুড়িয়ে মারা সবকিছুর অবসান এর এন্ডিং এর সাথে হয়ে গেছে। সব কিছু আরো ডিটেইলস এ হওয়া জরুরি ছিল তবে তা যদি না হয় এন্ডিং মনমতো না হলেও তা যে পার্ফেক্ট ছিল সেটা মানতেই হবে।

আরও খবর পড়ুনঃ গেম অফ থ্রোনস’ সম্পর্কে ১০ টি আশ্চর্যজনক তথ্য

100% Free Domain Hosting - Dreamhost banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

৩৩তম প্রয়াণ দিবস, মৃত্যুবার্ষিকীতে ফিরে শোনা কিশোর কুমারের সেরা কিছু গান

বলাই হয় তাঁকে ভার্সাটাইল জিনিয়াস! কথাটা যদি শুধু গানের দিক থেকে ধরতে হয়, তা হলেও খেটে যায়।…