কাঁচকলার পকোড়া
Home লাইফস্টাইল বিকেলে চায়ের সাথে কিছু মুখোরোচক নাহলে চলে না?বানিয়ে নিন কাঁচকলার পকোড়া !

বিকেলে চায়ের সাথে কিছু মুখোরোচক নাহলে চলে না?বানিয়ে নিন কাঁচকলার পকোড়া !

বিকেলে জলখাবারের সাথে তেলেভাজা কার না ভালোলাগে।তবে এবার হোক স্বাদবদল।জলখাবারের পাতে এবার পড়ুক সুস্বাদু কাঁচকলার পকোড়া।

বিকেল হলেই মনের মধ্যে ইচ্ছা জাগে এক কাপ গরম ধোঁয়া ওঠা চায়ের।আর চা আসবে আর বাঙালী গল্পের আসর বসাবে না তা তো কখনোই হয় না।তাই গল্পের মেজাজ জমাতে চায়ের সাথে সাথে খোঁজ পড়ে যায় ‘টা’ এর।

Web content writing training Online

এবার এই ‘টা’ নিয়েই হয়ে যায় আসল চিন্তা।রোজ রোজ তো আর এক খাবার খাওয়া যায় না, এদিকে নতুন কি বানানো হবে সেটাও ভেবে কুল-কিনারা করা যায় না।তাই দেওয়া হল এক মুখোরোচক খাবারের সন্ধান। চা এর সাথে এবার সন্ধ্যে হলেই পাতে পড়ুক  সুস্বাদু কাঁচকলার পকোড়া ।

উপকরণঃ

বড়ো একটি কাঁচকলা – সেদ্ধ

একটি আলু – সেদ্ধ

নুন – পরিমান মতো

হলুদগুঁড়ো – পরিমান মতো

গোল মরিচ – পরিমান মতো

গরম মশলা -১/২ চা-চামচ

চিনি- ১টেবিল চামচ

সাদা তেল- ১০০ গ্রাম

খাবার সোডা- ১চিমটে

কাঁচকলার পকোড়া বানানোর পদ্ধতিঃ

Source: Collected

প্রথমে একটা বড়ো পাত্রে কাঁচকলা সেদ্ধটা ভালো করে মেখে নিন।তারপর তারসাথে সেদ্ধ আলুটাও ভালো ভাবে মেখে নিন।এমনভাবে মাখবেন যেন সব ভালোভাবে মিশে যায়।এইবার ওই মেখে রাখা মিশ্রনে একে একে যোগ করুন উপরের উল্লেখিত উপকরণগুলো।প্রথমে নুন, হলুদগুড়ো, গোলমরিচ ও গরম মশলা যোগ করে ভালো ভাবে মেখে নিন।এরপর তাতে ১ টেবিল চামচ চিনি যোগ করুন।আপনি যদি না চান নাও যোগ করতে পারেন।এরপর এতে যোগ করুন এক চিমটে খাওয়ার সোডা।এটা পকোড়াটি মুচমুচে হতে সাহায্য করে।এরপর মিশ্রনটি হাতে নিয়ে(হাতে তার আগে একটু তেল মেখে নেবেন, নাহলে মিশ্রণটি বার বার হাতে আটকে যাবে) গোল গোল করে নিয়ে চ্যাপ্টা করে দিন।এরপর কড়াইতে তেল গরম করে নিয়ে পকোড়াগুলি ছাঁকা তেলে ভেজে তুলে দিন।এরপর চা-এর সাথে পরিবেশন করুন মুচমুচে কাঁচকলার পকোড়া।

পরবর্তীতে পড়ুনঃখাদ্য রসিক অথচ রোগা হতে চান? খাবারকে বাদ না দিয়েই দেখে নিন রোগা হওয়ার উপায় !

100% Free Domain Hosting - Dreamhost banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

পুজো হবে, নাকি হবে না ! দোটানায় কলকাতার আবাসনের দুর্গা পুজো !

 হবে, নাকি হবে না? কলকাতার আবাসনে এটাই পুজোর ভাবনা। আবাসনের অনেক আবাসিক দোটানায়! কেউ কেউ …