Home লাইফস্টাইল ক্যান্সার আক্রান্তদের জন্য নিজের চুল দান করে নজির গড়লেন লাবণ্য!
লাইফস্টাইল - September 8, 2019

ক্যান্সার আক্রান্তদের জন্য নিজের চুল দান করে নজির গড়লেন লাবণ্য!

চুল নাকি মেয়েদের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। নিজের সেই ঘন কালো চুল অবলীলায় অন্যকে দান করে নজির গড়লেন আরজে লাবণ্য দত্ত। লাবণ্য একটি রেডিও সংস্থার রেডিও জকি। তিনি ক্যানসার রোগীদের জন্য রিয়েল হেয়ার উইগ বানানোর উদ্দেশ্যে দান করলেন নিজের লম্বা চুল। একজন মেয়ের পক্ষে এটি একটি কঠিন পদক্ষেপ তো বটেই।

Web content writing training Online

লাবণ্য কে এই ব্যাপারে প্রশ্ন করতে তিনি বলেন সোনালী ব্রেন্দের যখন ক্যান্সার হয়েছিল তখন তার সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট দেখে প্রথম তিনি জানতে পারলেন রিয়েল হেয়ার উইগ এর বিষয়টি। ওই পোস্টটিতে সোনালী বেন্দ্রে লিখেছিলেন তার পরিচিত একজন হেয়ার স্টাইলিস্ট তাকে এই রিয়েল হেয়ার উইগটি উপহার দিয়েছিলেন।

এছাড়াও তিনি লিখেছিলেন এই উইগটি পরে তার আত্মবিশ্বাস অনেকটা বেড়ে গেছে এবং ভালোলাগা সৃষ্টি হয়েছে। সোনালী বেন্দ্রের এই পোস্টটি দেখেই নিজের চুল দান করার কথা ভাবেন লাবণ্য। এরপরই তিনি খোঁজখবর নেওয়া শুরু করেন। ভারতে যদিও মন্দিরের চুল দানের প্রথাটি অনেক দিন ধরেই চলছে তবে সেই চুলগুলি যেসব মানুষের প্রয়োজন তাদের কাছে ঠিকমতো পৌঁছায় না। বিদেশে ইন্ডিয়ান চুলের প্রচুর দাম। যাদের সত্যিই এই রিয়েল হেয়ার লীগের প্রয়োজন তারা এটি কিনতে পারেন না কারণ এটি তখন হয়তো তাদের সাধ্যের বাইরে থাকে।

তাই এই ধরনের কিছু মানুষকে সাহায্য করার জন্যই লাবণ্যের মাথায় নিজের চুল দানের বিষয়টি আসে।তিনি এই চুল গানের পদক্ষেপটি কিভাবে সফলভাবে নিতে পারলেন তা জিজ্ঞেস করতে তিনি বললেন, তিনি ক্যান্সার আক্রান্তদের নিয়ে যেসব সংস্থা কাজ করেন তাদের সাথে কথা বলেন। এভাবে খোঁজখবর করতে করতে তিনি মুম্বাইয়ের কোপ উইথ ক্যান্সার নামের একটি সংস্থার সাথে তার কথা হয়, তারা লাবণ্যর এই চুল দান করার সিদ্ধান্ত শুনে উৎসাহিত হয়ে ওঠে এবং এগিয়ে আসে এই পদক্ষেপকে বাস্তবায়িত করার জন্য।লাবণ্য নিজস্ব একটি গ্রুপ আছে রোমিং পার্টনার নামের। তারা চেয়েছিল লাবণ্যের এই পদক্ষেপ যাতে সবার কাছে পৌঁছে যায় এবং সবাই এই বিষয় নিয়ে যাতে ভাবেন আর জন্য লাবনী এই পদক্ষেপ সবার কাছে পৌঁছক। অবশেষে তিনি কিছুদিন আগে তার সেই লম্বা চুল কেটে মুম্বাইতে কোপ উইথ ক্যান্সার সংস্থার কাছে পাঠিয়ে দেন।

লাবণ্যের এই চুল দান করার পদক্ষেপ সত্যিই সাহসী এবং প্রশংসনীয়। লাবণ্যের এই পদক্ষেপের জনতার পাশে শুধুমাত্র তার বন্ধুরাই নন তিনি তার বাবা-মাকেও পেয়েছিলেন। ক্যান্সের পেশেন্ট এর কথা ভেবে নিজের চুল দান করার কথা কলকাতায় বোধহয় লাবন্যই প্রথম ভেবেছেন। তবে এরকম পদক্ষেপ আরো বেশি কিছু মানুষের গ্রহণ করা প্রয়োজন। এরকম পদক্ষেপ আরো বেশি গ্রহণ করলে যাদের প্রয়োজন রিয়েল হেয়ার উইগ এর তারা ন্যায্যমূল্যে পেতে পারবেন এবং তাদের জীবনের এই কঠিন লড়াই লড়তে আত্মবিশ্বাসের অভাব ঘটবে না।

আরও পড়ুনঃজেনে নিন বাতাবি লেবুর উপকারীতা!

100% Free Domain Hosting - Dreamhost banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

পুজো হবে, নাকি হবে না ! দোটানায় কলকাতার আবাসনের দুর্গা পুজো !

 হবে, নাকি হবে না? কলকাতার আবাসনে এটাই পুজোর ভাবনা। আবাসনের অনেক আবাসিক দোটানায়! কেউ কেউ …